অবশেষে ৮২ আসনে প্রার্থী দিল বিএনএম

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর ও মহাসচিব মো. শাহ্জাহান স্বাক্ষরিত প্রার্থী তালিকা গণমাধ্যমে পাঠানো হয়।

233

নিউজ ডেস্ক : সাবেক সংসদ সদস্যসহ বিএনপি থেকে গুরুত্বপূর্ণ অনেকেই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারেন বলে আলোচনা ছিল। তবে দলটি পরিকল্পনামাফিক সবকিছু গোছাতে পারেনি। আজ বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে দলটি নিজেদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। ‘কিংস পার্টি’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া দলটি ৩০০ আসনের মধ্যে মাত্র ৮২ আসনে প্রার্থী দিতে পেরেছে।

নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধন পাওয়ার পর থেকেই ‘কিংস পার্টি’ হিসেবে আলোচনায় রয়েছে বিএনএম। বিএনপির অনেক সাবেক সংসদ সদস্য দলটিতে যোগ দিতে পারেন বলে আলোচনা থাকলেও কয়েকজন সাবেক সংসদ সদস্য ছাড়া পরিচিত কোনো রাজনীতিককে এখন পর্যন্ত দলটি টানতে পারেনি। আজ দলের ঘোষিত প্রার্থী তালিকায়ও চমক নেই।
দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর ও মহাসচিব মো. শাহ্জাহান স্বাক্ষরিত প্রার্থী তালিকা গণমাধ্যমে পাঠানো হয়। দল ঘোষিত প্রার্থীদের মধ্যে ছয়জন সাবেক সংসদ সদস্য রয়েছেন। তাঁরা হলেন—ফরিদপুর–১ আসনে শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর, বরগুনা-২ আসনে অধ্যাপক আবদুর রহমান, সাতক্ষীরা–৪ আসনে এইচ এম গোলাম রেজা, নীলফামারী–১ আসনে জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, জামালপুর–৪ আসনে মামুনুর রশিদ এবং সুনামগঞ্জ-৪ আসনে দেওয়ান শামসুল আবেদিন।

এ ছাড়া দলের মহাসচিব মো. শাহ্জাহান চাঁদপুর–৪, সংগীতশিল্পী ডলি সায়ন্তনী পাবনা-২ ও আরএকে সিরামিকসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ এ কে একরামুজ্জামান ব্রাহ্মণবাড়িয়া–১ আসন থেকে বিএনএমের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। একরামুজ্জামান বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন।
দলীয় শৃঙ্খলাপরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গত মঙ্গলবার সৈয়দ এ কে একরামুজ্জামানকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দল থেকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় বিএনপি। এ কে একরামুজ্জামানকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে উপজেলা বিএনপি। গতকাল বুধবার উপজেলা বিএনপির সভাপতি এম এ হান্নান ও সাধারণ সম্পাদক কে এম বশির উদ্দিনের এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়।

প্রার্থী তালিকার বিষয়ে দলের মহাসচিব মো. শাহ্জাহান বলেন, ‘বিভিন্ন আসন থেকে ৪৭৮ জন মনোনয়নপ্রত্যাশী ব্যক্তির মধ্যে ৮২ জনকে চূড়ান্ত করেছি। আমরা কোয়ান্টিটিতে নয়, কোয়ালিটিতে বিশ্বাসী। যাঁরা বিজয়ী হওয়ার মতো, তাঁদের তালিকায় রাখা হয়েছে।’ অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে দল মনোনীত প্রার্থীদের অধিকাংশ বিজয়ী হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

নির্বাচন এগিয়ে এলেও দলটিতে এখনো চেয়ারম্যান পদে কারও নাম ঘোষণা করা হয়নি। এ বিষয়ে বিএনএমের মহাসচিব মো. শাহ্জাহান ২৭ নভেম্বর সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রয়েছেন। চেয়ারম্যান যেকোনো সময় এসে যোগ দিতে পারেন। আমরা চমকের অপেক্ষায় আছি।’

এই বিভাগের আরও সংবাদ