ব্রিটিশ মিউজিয়াম থেকে প্রায় ৩৫০ বছর পর ফিরছে ছত্রপতি শিবাজির বাঘনখ

বাঘনখ দিয়েই তিনি হত্যা করেছিলেন বিজাপুরের সুলতানের সেনাপতি আফজল খাঁকে।

59

ডেস্ক নিউজ: ছত্রপতি শিবাজির বীরত্বের কাহিনীর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে তার সেই ভংয়কর বাঘনখের গল্প। শিবাজির সেই অস্ত্র এখন কোথায় তা দেশের বহু মানুষই হয়তো জানেন না। সেটি রয়েছে লন্ডনের এক মিউজিয়ামে। প্রায় ৩৫০ বছর পর সেই বাঘনখ ফিরছে দেশে।

বিখ্যাত ওই বাঘনখ দিয়েই তিনি হত্যা করেছিলেন বিজাপুরের সুলতানের সেনাপতি আফজল খাঁকে। ধাতব ওই নখ দিয়ে তিনি আফজলের পেট চিরে দেন। এবছর ছত্রপতি শিবাজির রাজ্যাভিষেকের ৩৫০ বছর পূর্ণ হচ্ছে। এই বছরটি সাড়ম্বরে পালন হবে মহারাষ্ট্রে। সেই উপলক্ষ্যে লন্ডনের ভিক্টোরিয়া অ্যান্ড অ্যালবার্ট মিউজিয়াম থেকে ওই বাঘনখ ৩ বছরের জন্য ফিরছে মহারাষ্ট্রে। মঙ্গলবার লন্ডনের ওই মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একটি চুক্তিকে সাক্ষর করবেন মহারাষ্ট্রের সংস্কৃতিমন্ত্রী সুধীর মুঙ্গানাথিয়ার।

সুধীর মুঙ্গানাথিয়ার সংবাদমাধ্যমে বলেন, নভেম্বরে ওই বাঘনথ মহারাষ্ট্রে আনা হবে। তার জন্য আমরা একটি চুক্তিতে সাক্ষর করব। আফজল খাঁকে যেদিন ছ্ত্রপতি শিবাজি হত্যা করেছিলেন সেই দিনই বাঘনথ আমরা রাজ্যে আনার চেষ্টা করব। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে সেটিকে রাখা হবে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের শিবাজি মিউজিয়ামে।

মারাঠা সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠায় বড় ঘটনা হল ১৬৫৯ সালের প্রতাপগড়ের যুদ্ধে মারাঠাদের জয়। বাহিনীর শক্তি কম হওয়ার পরও আফজল খাঁর বাহিনীকে পরাস্ত করে মারাঠারা। শিবাজির রণকৌশলে পরাস্ত হয় আদিলশাহি সাম্রাজ্যের শক্তি। আফজল খাঁকে হত্যা করেন শিবাজি। সেই ঘটনা লোকগাঁথা হয়ে রয়েছে এখনও। কথিত রয়েছে আফজল খাঁ পেছন থেকে শিবাজিকে ছুরিকাঘাত করলে শিবাজি ওই বাঘনখ দিয়ে আফজলের পেট চিরে দেন।

সুত্র-জি নিউজ

এই বিভাগের আরও সংবাদ